মুখে ভাতের পর থেকে কী কী খাবার দেবেন শিশুকে? চার্ট-সমেত হদিস থাকল এখানে!

মুখে ভাতের পর থেকে কী কী খাবার দেবেন শিশুকে? চার্ট-সমেত হদিস থাকল এখানে!

তিতিরসোনা পুঁচকে হলে কী হবে? গলায় জোর কিন্তু মোটেই পাখির মতো নয়। আর ছোট থেকেই খাবার নিয়ে তার ভয়ানক বায়নাক্কা। মায়ের দুধে তার পেট ভরতো না বলে, ডাক্তারের পরামর্শে ওর মা রিদ্ধিমা ওকে বুকের দুধ ও ফরমুলা মিলিয়ে মিশিয়ে খাওয়াত সারাদিনে। এই ফরমুলা খাওয়াতে গিয়ে যেন ঘেমে নেয়ে একসা হয়ে যেত মা বেচারি। (6 Months Baby Food Chart And Recipes)

মেয়ে গত সপ্তাহেই ৬ মাসের হয়ে গেছে, তুরতুরিয়ে বড় হচ্ছে; এই কথা ভেবে রিদ্ধিমা যেমন আনন্দ পাচ্ছে; অন্যদিকে তিতিরের খাবারের ব্যাপারে চিন্তা করে তার মনে ভয় কিন্তু কম নেই। (Introducing Solids) বাড়ির গুরুজনেরা যতই পরামর্শ দিন না কেন, রিদ্ধিমা তো জানে, তার তিতিরপাখি চ্যাঁ-ভ্যা না করে একটা দানাও মুখে তুলবে না (6 Maser Bachhar Khabar o Recipe)।

কিন্তু এবার তো সলিড খাবার খাওয়ার অভ্যেস শুরু করাতেই হবে তিতিরকে। না হলে ও যে সম্পূর্ণ পুষ্টি পাবে না। আর যে মেয়ের ফরমুলা খাওয়া নিয়ে এত প্রতিবাদ, সে নুন-চিনি-মশলা ছাড়া সেদ্ধ খাবার খাবে কীভাবে (Starting Solids at 6 months), এই ভেবেই চোখের তলায় কালি জমছে তিতিরের মায়ের।

শুধু তিতিরের মা কেন, আপনিও যদি এক ৬ মাসের ছানার মা হন, আপনার মনেও এসব প্রশ্ন আসতে বাধ্য। এতদিন তো শুধু বুকের দুধ বা ফরমুলাতেই হয়ে যেত, কিন্তু এবার পরিবর্তন আসবে বাচ্চার খাবারে। (Introducing Solids to Your 6 month to 8 month old Baby) সলিড খাবারের সাথে ধীরে ধীরে পরিচিত করে তুলতে হবে ওকে।

কীভাবে খাওয়াবেন, কতটা খাওয়াবেন বা কখন খাওয়াবেন, এই ধরনের নানান প্রশ্ন বিভ্রান্ত করে তোলে নতুন মায়েদের। যারা রিদ্ধিমার মতো বর আর বাচ্চাকে নিয়ে একলা থাকে, তাদের মুশকিল যেন আরও বেশি। আজ সেই মায়েদের কথা ভেবেই আমাদের এই প্রতিবেদন। (Complete Guide to Starting Baby on Solids)

বাচ্চার বয়স ৬ মাস হয়ে গেলে সার্বিক পুষ্টির জন্য তাকে কী কী খাওয়ানো উচিত? কখন কখন খাওয়াবেন এবং কতটা পরিমাণে খাওয়াবেন। কীভাবে খাবার বানালে সেদ্ধ এবং ঘাঁটা খাবারেও আসবে একটু স্বাদের ছোঁয়া; আজ এইসব কিছু নিয়ে কথায়, ছবিতে সাজিয়ে দিলাম প্রতিবেদন (6 Months Baby Food Chart with Baby Food Recipes)। তা ছাড়াও, ৬ মাসের বাচ্চার প্রথম শক্ত খাবার বানানোর সহজ পদ্ধতি বোঝাতে সঙ্গে রইলো একখান ভিডিও। পড়ে নাও, দেখে নাও আর শুনে নাও তোমার ৬ মাসের পুঁচকের খাতিরে।

 

৬ মাসের বাচ্চাকে কী কী খাবার দেওয়া যায়? (Foods for 6 Months Old Baby)

বাচ্চার বয়স ৬ মাস হয়ে গেলে মোটামুটি যেসব খাবার দিয়ে শুরু করতে পারেন,

  • ফলের মধ্যে আপেল, কলা, নাশপাতি, অ্যাভকাডো, পিচ ফল দিতে পারেন। তবে ফল সেদ্ধ করে পেস্ট করেই দিন। কলার ক্ষেত্রে সেদ্ধ করার দরকার হয় না, মিহি পেস্ট করে দিতে পারেন।
  • ডালের মধ্যে মুগ ডাল, মুসুরির ডাল সেদ্ধ বা ডালের জল বাচ্চাকে খাওয়াতে পারেন।
  • সবজির মধ্যে মিষ্টি আলু, মিষ্টি কুমড়ো, আলু, গাজর, মটরশুঁটির মতো সবজি ভর্তা বানিয়ে বা স্যুপের মধ্যে চটকে বাচ্চাকে খাওয়ান (Sisur Khabar)।
  • রাগি, বার্লি, ওটসের পরিজ এবং নরম ভাত রাখুন বাচ্চার খাদ্যতালিকায়।

 

৬ মাসের বাচ্চাকে দিনে কখন সলিড ফুড খাওয়াবেন?
(6 Month Baby Food Chart with Time)

বাচ্চা সবে সলিড খাবার খেতে শুরু করছে, তাই বলে খাওয়ার সময় হলেই ওকে সলিড খাবার দেবেন না যেন! ৬ মাসের বাচ্চার ডায়েটে সলিড ও বুকের দুধ/ফরমুলা থাকবে মিলিয়ে মিশিয়ে এবং নির্দিষ্ট কিছু সময়ের অন্তরে (6 Months Old Baby Food Chart)। ৬ মাসের বাচ্চাকে দিনে দু’বার যে কোনও সলিড খাবার দিলেই যথেষ্ট। আপনাদের বোঝানোর সুবিধার্থে নীচে একটি ফুড চার্ট (বাচ্চার খাওয়ার রুটিন/ খাদ্য তালিকা) দিয়ে দিলাম (Baby Meal Plan)। সময়ের আন্দাজ এতে হয়ে যাবে, আর ৬ মাসের বাচ্চাকে কী কী খাওয়াবেন, তার রেসিপিগুলোও সব দিয়ে দিচ্ছি এক এক করে।

6 Months Baby Food Chart in Bengali

 

৬ মাসের বাচ্চার জন্য পুষ্টিকর ও নরম (পরিজ) কিছু রেসিপি (Homemade Baby Food Recipes for 6 Months)

 

#1. ডাল সেদ্ধ: মুগ ডাল বা মুসুরির ডাল খুব ভালো করে ধুয়ে নিন। এবার প্রেসার কুকারে জল দিয়ে ২/৩ টি সিটি হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। কুকারের ভাপ খুলে গেলে ডাল অল্প ঠান্ডা হলে ব্লেন্ডারে মিহি পেস্ট করে নিন। বাড়িতে তৈরি খাঁটি ঘি সামান্য একটু ওই ডালের পেস্টে মিশিয়ে বাচ্চাকে খাওয়ান (6 Month Baby Food)।

#2. নরম ভাত: বাড়িতে যে ভাত খান, সেই ভাতই আরেকটু বেশি সেদ্ধ করুন আপনার খুদের জন্য। এবার সেদ্ধ ভাত, অল্প জল ব্লেন্ডারে দিয়ে মিহি পেস্ট করে নিন (Homemade Baby Food Recipes)। খাঁটি অরগানিক বাটার বা মাখন অল্প মিলিয়ে বাচ্চাকে ভাতের পেস্ট খাওয়ান।

#3. ভাত, আলুসেদ্ধ ও ডালের জল চটকে মাখা: ডালের জল, বেশ নরম করে গলানো ভাত আর সুসিদ্ধ আলু, সবকিছু একসাথে চটকে মিহি পেস্ট বানিয়ে নিন এবং বাচ্চাকে খাওয়ান (6 Months Baby Food Chart with Baby Food Recipes)।

#4. গ্লুটেন ফ্রি ওটস পরিজ: এই পরিজ বানানোর দুই রকম পদ্ধতি আছে।

পদ্ধতি ১->

উপকরণ:

  • গ্লুটেন ফ্রি ওটস
  • জল
  • খাঁটি গুড়

 

প্রণালী:

  • প্যানে জল গরম করে জল ফুটে এলে ওটস দিয়ে দিন।
  • কিছুক্ষণ সেদ্ধ হওয়ার পর মিশ্রণটা থকথকে হয়ে এলে নামিয়ে নিন।
  • যদি মনে হয়, ব্লেন্ডারে পুরো মিশ্রণটা একবার পেস্ট করে নিন।
  • বাচ্চাকে খাওয়ানোর সময় সামান্য খাঁটি গুড় মিশিয়ে দিন (Meal Plan fo 6 Month Old Baby)। এতে মিষ্টি ভাব আসায় বাচ্চা সুন্দর খেয়ে নেবে।

 

পদ্ধতি ২-> এই পদ্ধতিতে আপনি বাচ্চাকে বাইরে নিয়ে গেলেও ওটস পরিজ খাওয়াতে পারবেন। বাইরে বেড়াতে গেলে বাচ্চা সলিড কী খাবে এই নিয়ে মাথা খারাপ করতে হবে না (Sisur Pustikor Khabar)।

উপকরণ:

  • গ্লুটেন ফ্রি ওটস
  • জল
  • ফরমুলা মিল্ক বা বুকের দুধ

 

প্রণালী:

  • ওটস ভালো করে ড্রাই রোস্ট করে নিন।
  • এবার রোস্ট করা ওটস একটু ঠাণ্ডা হয়ে এলে ব্লেন্ডারে দিয়ে মিহি গুঁড়ো করে নিন।
  • এয়ার টাইট কৌটোতে এই গুঁড়ো করা ওটস আপনি সংরক্ষণ করতে পারবেন।
  • বাচ্চাকে খাওয়ানোর সময় ফরমুলা মিল্ক বা বুকের দুধ মিশিয়ে খাওয়ান।
  • প্রয়োজন অনুযায়ী জল মেলাবেন। (Homemade Baby Food Recipes)

 

আরও অন্য পদ্ধতিতে বানানো ওটস পরিজ এবং ৬ মাসের বাচ্চার খাওয়ার মতো কিছু মজাদার রেসিপি রইলো সঙ্গের ভিডিওতে। দেখে নিন->

 

 

আরও পড়ুন: ছোট্ট ছানার জন্য সহজ-স্বাস্থ্যকর ১০ ধারার খিচুড়ির রেসিপি!

 

#5. চাল এবং মুগ ডালের জাউ

উপকরণ:

  • চাল- তিন টেবিল-চামচ
  • ডাল- দুই টেবিল-চামচ

 

পদ্ধতি:

  • চাল ধুয়ে নিয়ে শুকিয়ে নিন, তারপর গুঁড়ো করুন।
  • ডাল একটু ভেজে গুঁড়ো করে নিন।
  • দুটোকে একসাথে মিশিয়ে নিন।
  • গরম জলের মধ্যে মিশ্রণটা দিয়ে নাড়তে থাকুন কিছুক্ষণ (Six Month Baby Food)।
  • থকথকে হয়ে এলে নামিয়ে নিন।

 

#6. আপেল ও রাগির জাউ

উপকরণ:

  • রাগি আটা- দুই টেবিল চামচ
  • অর্ধেক আপেল

 

পদ্ধতি:

  • আপেলটা কেটে একদম গলিয়ে ফেলুন।
  • রাগি আটা জলে মেশান এবং রান্না করুন।
  • রাগি মিশ্রণ আর আপেলের মিশ্রণ একসঙ্গে মিলিয়ে নিন (Homemade Baby food Recipes)।

 

#7. নাশপাতির পিউরি: নাশপাতিকে ছোট ছোট টুকরোয় কেটে নিন। এবার ছুরি দিয়ে ঘষে বীজ গুলো ফেলে দিন। প্যানে জল নিয়ে নাশপাতির টুকরোগুলো সেদ্ধ করে নিন। এবার ব্লেন্ডারে একটা মিহি পেস্ট বানিয়ে নিন। ফরমুলা দুধ মিশিয়ে বাচ্চাকে খাওয়ান। যদি একটু পাতলা করতে হয়, তা হলে প্রয়োজনমতো জল মিশিয়ে নিন।

নাশপাতি দিয়ে ফলের পিউরি শুরু করলাম বটে (Homemade Puree for Babies), কিন্তু হাতের সামনে যে ফলগুলো সবসময় থাকে, তাদের পিউরি বানিয়ে দিতে ভুলবেন না যেন! রেসিপি রইলো ছবিতে->

6 month baby food menu in Bengali

 

 

বাচ্চার খাবারের পরিমাণ কতটা হবে? (How Much Baby Food Should a 6 Month Old Eat? )

৬ মাস বয়সে বাচ্চা প্রথম সলিড খাবারের সাথে পরিচিত হতে শুরু করে। প্রথমেই অনেকটা খাবার দেবেন না বাচ্চাকে। প্রথমে ৩-৪ চা চামচ পরিমাণ দিয়ে শুরু করুন (6-Month-Old Feeding Schedule)। বাচ্চার শরীর অভ্যস্ত হয়ে গেলে ধীরে ধীরে পরিমাণ বাড়াবেন।


কী কী বিষয়ে বিশেষ সতর্ক থাকবেন:

  • ৬ মাসের বাচ্চার জন্য দিনে দু’বার সলিড খাবার খাওয়া যথেষ্ট। বাকি সময় বুকের দুধ বা ফরমুলা খাওয়ান।
  • বাচ্চাকে একসাথে বা একদিনে অনেক রকম খাবার খাওয়াবেন না। কোনও সলিড খাবার প্রথম শুরু করলে সেটা কম কম পরিমাণে অন্তত তিনদিন খাওয়ান। এই তিনদিন খাবার হজমে বাচ্চার কোনও সমস্যা
  • হচ্ছে কি না বা বাচ্চার পটি কেমন হচ্ছে সেদিকে খেয়াল রাখুন (Simple Steps to Starting Solids)। বাচ্চার কোনও খাবারে এলারজি থাকলে বুঝে যাবেন এভাবেই।
  • বাচ্চার খাবারে কোনও নুন, চিনি, তেল বা মশলা এখনই দেবেন না।
  • বাড়িতে তৈরি খাঁটি ঘি বা অরগানিক বাটার ব্যবহার করুন বাচ্চার খাবারে।
  • বাচ্চার খাবারে স্বাদ আনতে খাবারে দিতে পারেন খাঁটি গুড়। (Introducing Solids to Your 6 Month Old Baby)
  • বাচ্চাকে সলিড শুরু করানোর আগে একবার ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে নিন এবং সলিড শুরুর প্রথম কয়েক সপ্তাহ নিয়মিত ডাক্তারের মতামত নিতে থাকুন। (6 Months Baby Food Chart And Recipes)

 

আরও পড়ুন: বাচ্চার ওজন বাড়াতে সহায়ক ঘী মেলানো ৫টি রেসিপি। ট্রাই করুন আজই!

 

একজন মা হয়ে অন্য মায়েদের সঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিতে চান? মায়েদের কমিউনিটির একজন অংশীদার  হয়ে যান। এখানে ক্লিক করুন, আমরা আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করব।

 

null