শিশুর পেশি শক্ত করতে পাঁচটি সহজ ব্য়ায়াম

শিশুর পেশি শক্ত করতে পাঁচটি সহজ ব্য়ায়াম

শিশুর বাড়-বৃদ্ধি নিয়ে চিন্তার অন্ত থাকে না নতুন মা-বাবার। সে কখন কী করবে, কোনটা ঠিক, কোনটা ভুল-ঠাহরই কর যায় না প্রথম প্রথম। তবে শিশুকে ঘাঁটতে ঘাঁটতে সেই অভিজ্ঞতা তৈরি হয়ে যায়। ধারণাও হয়ে যায়, কোন সময় ঠিক কী করা উচিত ওর, কী ভাবে বেড়ে উঠবে ও, কখন ওল্টাবে, কখন হামা দেবে, কখনই বা হাঁটবে। তাই বলছি, নিজের মতোই বেড়ে উঠতে দিন আপনার শিশুকে। তবে ওর শরীর-মনের বিকাশ খানিক দ্রুত করার জন্য় কিছুটা সাহায্য় আপনি করতেই পারেন। যেমন নবজাতক শিশুর পেশী খুবই দুর্বল হয়। কীভাবে ওকে শক্তসবল হতে সাহায্য় করবেন, তারই কিছু টোটকা বাতলে দিচ্ছি আমরা। দেখে নিন এখানে। How to strengthen your baby's muscles in Bangla. 

শিশুর পেশি শক্ত করতে পাঁচটি সহজ ব্য়ায়াম

#1. হাওয়ায় চালাই সাইকেল (Cycling in air) শিশুর হাঁটু, পা, হিপস আর পেটের আশপাশের পেশী বিকাশে সাহায্য় করে। শিশুর পেশী নমনীয় হয়, আটকানো পেশী মুক্ত করে। তারই সঙ্গে আপনার শিশুর পেটে যদি গ্যাস জমে থাকে, তাও বেরিয়ে যায় এই ব্য়ায়ামে।How to strengthen your baby's muscles in Bangla.

শিশুর পেশি শক্ত করতে পাঁচটি সহজ ব্য়ায়াম

#2. সুযোগ পেলেই বাড়াই ঘাড় (6 week old baby extending neck while lying on his/her belly) সদ্যোজাত শিশুর ঘাড় খুবই নরম হয়। ওর মাথার ওজন ধরে রাখার তুলনায় খুবই আলগা হয় গলা-ঘাড়ের গঠন। শিশু মোটামুটি দেড় মাসের হলেই দেখবেন পেটের উপর শুয়ে গলা বাড়ানোর চেষ্টা করছে ও। বাধা দেবেন না, এতেই গলা-ঘাড় শক্ত হবে ওর।

শিশুর পেশি শক্ত করতে পাঁচটি সহজ ব্য়ায়াম

#3. হাত দুটো একটু টেনে দাও না মা! (Hand excercise) শিশুকে শুইয়ে তার হাত দুটো নির্দিষ্ট সময়ের ব্যবধানে, আলতো করে খোলা-বন্ধ করতে থাকুন। পাঁচ মিনিট বিরতি নিয়ে আবার একই ব্য়ায়াম করান ওকে। এতে ওর হাতের পেশি শক্ত হবে। হাত বাড়িয়ে কোনও জিনিস ধরার অভ্যেস হয়ে যাবে ওর।

শিশুর পেশি শক্ত করতে পাঁচটি সহজ ব্য়ায়াম

#4. দেখো মাম্মি, সোজা হয়ে বসেছি আমি (Sitting with support of pillow) ছয়-আট মাসের ভিতরই শিশুর মধ্য়ে উঠে বসার প্রবণতা দেখতে পাবেন আপনি। পিঠে বালিশের সাপোর্ট দিয়ে ওকে বসতে সাহায্য করুন। এতে ওর শিরদাঁড়া শক্ত হবে। ধীরে ধীরে বালিশ ছাড়াই সোজা হয়ে বসতে শিখে যাবে ও।

শিশুর পেশি শক্ত করতে পাঁচটি সহজ ব্য়ায়াম

#5. হামা দিচ্ছি আজ, ছুট দেব কাল (Crawling) সাত-দশ মাসের ভিতরই হাত-পায়ের উপর ভর করে হামাগুড়ি দেবে আপনার শিশু। প্রথম প্রথম ওল্টাতে গিয়ে, টলমল শরীরে পড়ে যাবে ও। ঘাবড়াবেন না, এতেই ওর হাঁটু, কনুই শক্ত হবে। হামা দিতে দিতেই সোজা হয়ে দাঁড়াবে একদিন! How to strengthen your baby's muscles in Bangla.