ছোট্ট বাচ্চার খাবার-দাবার; (আট-বারো মাস)

ছোট্ট বাচ্চার খাবার-দাবার; (আট-বারো মাস)

ছ’টা মাস যেন চোখের পলক ফেলতে ফেলতেই শেষ। তাই না? এবার আপনার ছোট্ট সোনার জিভের স্বাদ বদলানোর সময় এসে গিয়েছে। বাচ্চাকে কীভাবে সলিড খাবারে অভ্যস্ত করবেন, দেখে নিন। বাচ্চার বয়স ৬ মাস হয়ে যাওয়ার পর শুধুমাত্র মায়ের দুধ থেকে সে সম্পূর্ণ পুষ্টি পায় না। তাই, আস্তে আস্তে তার জিভের স্বাদ বদলানো শুরু করতেই হয়। সলিড কী খাওয়ালে বাচ্চা প্রয়োজনীয় পুষ্টি পাবে বা কীভাবে খাবার বানালে বাচ্চা সানন্দে খেয়ে নেবে, মায়েদের ব্যতিব্যস্ত করে তোলে এই চিন্তাগুলোই। আপনার ছোট্ট সোনা যাতে তারিয়ে তারিয়ে নতুন খাবারের স্বাদ নিতে পারে, সেরকমই কিছু সহজপাচ্য,সুস্বাদু এবং পুষ্টিকর উপদেশ রইল এখানে। How to help your child eat solid food in Bangla. 

ছোট্ট বাচ্চার খাবার-দাবার; (আট-বারো মাস)

#1. সহজপাচ্য ও পুষ্টিকর (Healthy and easy to digest)- ১০ মাস বয়সের আগে বাচ্চার খাবারে নুন দেবেন না। বেশি চিনি বা তেলমশলা দিয়ে বাচ্চার খাবার বানাবেন না। খাবার যেন সহজপাচ্য এবং পাতলা ঘনত্বের হয়। এইসময় খাবার ভালো করে চটকে মেখে বাচ্চাকে চামচে করে খাওয়ান। এতে বাচ্চার খেতেও সুবিধে হবে আর আপনার খাওয়াতে। আপনার শিশু যাতে সমস্ত পুষ্টিগুণ পরিমিত মাত্রায় পায়, সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। How to help your child eat solid food in Bangla.

ছোট্ট বাচ্চার খাবার-দাবার; (আট-বারো মাস)

#2. সবজি দিয়ে খিচুড়ি (Vegetable puree/hotchpotch)
উপকরণ
সবজি যেমন আলু/ গাজর/ বিট/ মিষ্টি কুমড়ো/ পেঁপে
মাছ
সেদ্ধ ডিমের সাদা অংশ
চাল/ ডাল পরিমাণমতো
অল্প তেল
পেঁয়াজ কুচি, আদা ও রসুন কুচি
প্রণালী
প্রথমে মাছের পিসটা ভাপে সেদ্ধ করে কাঁটা বেছে আলাদা করে নিন।
সবজিগুলো ছোট ছোট করে কেটে নিন।
তেলে পেঁয়াজ, আদা,রসুন দিয়ে ভালো করে ভেজে নিন।এবার সবজিগুলো দিয়ে ভালো করে নাড়াচাড়া করে চাল ও ডাল দিয়ে দিন। নুন দিলে খুবই সামান্য পরিমাণে দেবেন।
এবার সবকিছু সেদ্ধ হবার জন্য পরিমাণমতো জল দিয়ে দিন। মনে রাখবেন, বাচ্চার খিচুড়ি পাতলা হবে তাই জলের পরিমাণও বেশি হবে।
চাল, ডাল প্রায় সেদ্ধ হয়ে এলে, ডিমের সাদা অংশটা এবং কাঁটা ছাড়িয়ে রাখা মাছটা মিশিয়ে আরও কিছুক্ষণ রান্না করুন।
বাচ্চাকে খাওয়ানোর আগে ভালো করে সব চটকে মেখে নিন।

ছোট্ট বাচ্চার খাবার-দাবার; (আট-বারো মাস)

#3. আপেল/গাজর/মিষ্টি আলুর ভর্তা (apple/carrot/ sweet potato puree)
উপকরণ
আধখানা আপেল/ একটা গাজর/ আধখানা মিষ্টি আলু
১ চা-চামচ এলাচ গুঁড়ো।
প্রণালী
যার ভর্তা বানাতে চান,তার খোসা ছাড়িয়ে নিন।
সবজি বা ফল একটা বাটিতে নিয়ে প্রেসার কুকারে রেখে ৩-৪ টি সিটি পড়ার অপেক্ষা করুন।
ঠান্ডা হয়ে গেলে চামচে করে ভর্তার মতো মেখে নিন এবং প্রয়োজন মতো এলাচ গুঁড়ো মেশান।
যদি পাতলা করতে চান, তা হলে অল্প বুকের দুধ বা বাচ্চা যে দুধ খায় সেটা একটু মিশিয়ে নিন।

ছোট্ট বাচ্চার খাবার-দাবার; (আট-বারো মাস)

#4. ওটস এবং দই (Oats and curd)
উপকরণ
ওটস
দুধ
দই
আপেল বা কলা
প্রণালী
প্রথমে ওটস দুধে ভালো করে সেদ্ধ করে নিন।
এরপর ঘরে পাতা দই এর সাথে ওটস, সেদ্ধ করা আপেল মিশিয়ে একটু ঠাণ্ডা করে বাচ্চাকে খাওয়ান।
আপেলের জায়গায় কলা চটকেও দিতে পারেন।

ছোট্ট বাচ্চার খাবার-দাবার; (আট-বারো মাস)

#5. গাজর বিটের স্যুপ (Carrot/Beetroot Soup)
উপকরণ
বিট (১/২)
গাজর (১/২)
ঘি (১ চা- চামচ)
প্রণালী
গাজর ও বিট ভালো করে ধুয়ে নিয়ে প্রেসার কুকারে রান্না করুন।
সেদ্ধ হয়ে গেলে ভালো করে মিশিয়ে নিন। ঘি এবং বিটনুন দিতে পারেন।

ছোট্ট বাচ্চার খাবার-দাবার; (আট-বারো মাস)

#6. সুজির ক্ষীর (Sooji Kheer)
উপকরণ
হাফ কাপ সুজি
দুই কাপ জল
হাফ চা- চামচ এলাচ/ জায়ফল গুঁড়ো
শুকনো ফলের পাউডার
প্রণালী
প্রথমে তাওয়াতে সুজিটা রোস্ট করে নিন।
অন্য একটা পাত্রে ২ কাপ জল ফোটাতে শুরু করুন।
জল ফুটে গেলে ওর মধ্যে সুজিটা দিয়ে দিন।
যাতে দলা পাকিয়ে না যায়, তার জন্য ক্রমাগত মিশ্রণটা নাড়তে থাকুন।
জল কমে এলে, সামান্য ঘি মিশিয়ে দিন।
ঘি ভালোভাবে মিশে গেলে, এলাচ, জায়ফল বা ড্রাই ফ্রুটস পাউডার মিশিয়ে দিন।How to help your child eat solid food.