সেরার সেরা ইলিশ মাছের ১০ অভিনব রেসিপি। তোমাদের পাঠানো, তোমাদেরই জন্য!

সেরার সেরা ইলিশ মাছের ১০ অভিনব রেসিপি। তোমাদের পাঠানো, তোমাদেরই জন্য!

‘সরষে বাটা জোরসে দাদা,
ঠেঙিয়ে বাজার ডিঙিয়ে কাদা,
চারটে ইলিশ মাছ কিনেছি,
বাদলা এমন এই দিনে… ছি!’

বাঙালিই বোধহয় একমাত্র, যে ফলের খোসা থেকে ডগা, কাণ্ড থেকে শিকড়, ফুল থেকে পাতা সব কিছু দিয়ে তৈরি করে ফেলতে পারে নানা ব্যঞ্জন। আর রান্না? ভাজা, ভাতে, পোড়া, সিদ্ধ, শুক্তো, ঘণ্ট, ছ্যাঁচড়া, ছেঁচকি, চচ্চড়ি, ছক্কা, ছোকা, ঘ্যাঁট, লাবড়া, ঝাল, ঝোল, ভাপা, ডালনা, দোলমা, অম্বল, টক… এক পঙ্‌ক্তিতে ধরানোই মুশকিল। (Best Hilsa Fish Recipes)

এই অসীম ক্ষমতার ওপর ভরসা করেই গত সোমবার ইলিশ পার্বণের ডাক দিয়েছিলাম আমরা। ‘ঝোলে ঝালে অম্বলে তোমাকে চাই’ বলে হাঁক তো সবাই দিতে পারে। (10 Ilish Mach Recipes to Try) আমরা খোঁজ করছিলাম এমন কয়েক রাঁধুনির, অজানা-অচেনা উপকরণ দিয়ে ইলিশ রেঁধেও চমকে দিতে পারেন যিনি!

সেই অপেক্ষার অবসান হয়েছে শুক্কুরবার। ইলিশ ভাজা থেকে ভাপা, সর্ষে থেকে পাতুড়ি। ইলিশের ঝোল, টক, দই ইলিশ, এমনকী ইলিশ বিরিয়ানির হদিসও উড়ে এসেছে (Best Ilish Maach Recipes) আমাদের মেলের ঠিকানায়।

চুলচেরা বিচারে ইলিশের কোন পদ কার থেকে এগিয়ে, তা বাছা সত্যিই কঠিন ছিল। শেষমেশ সবাইকে পিছনে ফেলে সেরার শিরোপা ছিনিয়ে নিল লাউ পাতায় ইলিশ মোড়া। (Famous Hilsa Fish Recipes) সেরা দশে জায়গা করে নিল পুর-ভরা মরিচ ইলিশ, ইলিশের দই পোস্ত, মোচা-ইলিশের পাতুরি, ইলিশের টক, ঢাকাই ভুনা ইলিশ, ইলিশ বিরিয়ানিরা। কথা দিতে পারি, এ সব রেসিপি চাখলে জিভের সঙ্গে মনও আরাম পাবে আপনার…

 

ইলিশ মাছের ১০ অভিনব রেসিপি ((10 Best Ilish Maach Recipes (Hilsa Recipes)))

 

#1. লাউয়ের পাতায় ইলিশ মোড়া

এই রেসিপিটা একনজরে দেখে কেউ বলতে পারবে না যে, এতে ইলিশ মাছ আছে। দেখতে একখান বড়সড় চপের মতো। কিন্তু দাঁতে কামড়ালেই পোস্ত-সর্ষে-নারকেলে মাখামাখি হয়ে জিভে মিশবে ইলিশের সেই অনবদ্য স্বাদ। (Bangladeshi Ilish Recipe) লাউপাতার মোড়কে লুকিয়ে থাকা ইলিশ রানি মনে সুখ আর জিভে জল আনবেই আনবে।

 

কী কী লাগবে:

সাদা সরষে; কালো সরষে; পোস্ত; নারকেল; কাঁচা লঙ্কা; নুন; হলুদ; বেসন; লাউপাতা; ইলিশ মাছের মাঝারি টুকরো; সরষের তেল

 

কীভাবে বানাবেন:

  • সম পরিমাণ গোটা সাদা সরষে ও কালো সরষে কয়েকটা কাঁচা লঙ্কা সমেত মিহি করে বেটে নিতে হবে।
  • এবার ওই সরষের মিশ্রণে পোস্ত বাটা, নারকেল বাটা/মিহি কোরা, হলুদ গুঁড়ো, নুন ও কাঁচা সর্ষের তেল মিশিয়ে ভালো করে মিক্স করতে হবে।
  • ইলিশ মাছের টুকরো গুলোকে ওই মিশ্রণে মাখিয়ে ১৫ মিনিট মতো ম্যারিনেট করে নিন।
  • এবার গ্যাসে গরম জল করে নিন। ধুয়ে রাখা লাউয়ের পাতাগুলো গরম জলে ডুবিয়েই তুলে নিন। এরকম করলে মাছ মোড়ার সময় পাতা ফেটে যাবে না।
  • একটু ঠান্ডা হয়ে গেলে লাউ পাতার ওপরে ম্যারিনেডের কিছুটা মশলা-সহ মাছ রাখুন। (Ilish MAcher Paturi Recipe) মাছের ওপরে অল্প কাঁচা সরষের তেল এবং একটা কাঁচা লঙ্কা চিরে রাখুন।
  • এবার বেসনের ব্যাটার বানিয়ে নিন। বেসনে কাঁচা লঙ্কা বাটা, নুন আর হলুদ গুঁড়ো ও পরিমাণমতো জল মিশিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন।
  • এই ব্যাটার কিন্তু একটু মোটা ধরনের হবে। এবার লাউপাতার ওপরে যে মাছগুলো সাজিয়ে রেখেছেন, সেগুলো মুড়ে নিয়ে ভেজে ফেলতে হবে।
  • কড়াইতে তেল গরম করুন। মাছ সমেত লাউপাতা ভালো করে মুড়ে নিয়ে বেসনের ব্যাটারে ডুবিয়ে তেলে ছাড়ুন।
  • মিডিয়াম ফ্লেমে ডিপ ফ্রাই করুন “লাউপাতায় ইলিশ মোড়া” । (Ilish Mach Recipe Bengali Style) বেসনের কোটিং ব্রাউন হয়ে গেলে নামিয়ে নিন।
  • গরমাগরম পরিবেশন করুন।

 

রেসিপি সৌজন্য: কাকলি মুখোপাধ্যায়; নিউটাউন (কলকাতা)

 

 

#2. পুর ভরা মরিচ ইলিশ

আচারের যে লঙ্কা বিকোয় বাজারে, ইয়াব্বড়, পেল্লায়! এই রেসিপির আধার সেই লঙ্কাই। লঙ্কা কিনে একপাশ চিড়ে ভেতর থেকে বীজগুলো ফেলে দিন। ভালো করে কচলে ধুয়ে সরিয়ে রাখুন। এবার পালা পুর বানানোর!

 

কী কী লাগবে:
আচারের লঙ্কা ৫-৬টি; ইলিশ মাছ (Hilsa Fish) ৩০০ গ্রাম; বড় পেঁয়াজ ১টা; রসুন কোয়া ৪ থেকে ৫টি; আদা বাটা ১ চামচ;, জিরে গুঁড়ো (ভাজা) ১ চামচ; গরম মশলা ১ চামচ; লঙ্কা গুঁড়ো ১ চামচ; হলুদ গুঁড়ো হাফ চামচ; পাঁচফোড়ন ১ চামচ; কাঁচালঙ্কা কুচোনো ১ চামচ; সরষের তেল ২ থেকে ৩ চামচ; ধনেপাতা ১ আঁটি; নুন ও চিনি আপনার প্রয়োজন মতো।

 

কীভাবে বানাবেন:

  • পুরের জন্য প্রথমে মাছ (Ilish Fish) ভেজে নিন। তারপর মাছ থেকে সব কাঁটা বের করে নিন।
  • কড়ায় তেল দিন। তাতে পাঁচফোড়ন দিন। এবার এতে পেঁয়াজবাটা, আদা ও রসুনবাটা দিন। এবার হলুদ ও লঙ্কা গুঁড়ো,জিরে গুঁড়ো দিন। নাড়তে থাকুন।
  • এবার মাছটা দিয়ে দিন। ভালো করে নাড়তে থাকুন। মাছের টুকরো ভেঙে দিন। একটু নেড়ে নিয়ে কাঁচালঙ্কা, গরমমশলা, নুন ও চিনি দিন। এগুলো দিয়ে আরেকটু নেড়ে নিন।
  • তারপর ধনেপাতা কুচি দিন। পাতিলেবুর রস দিয়ে নামিয়ে নিন। পুর রেডি।
  • ভাবছেন তো, পুর এবার লঙ্কায় পুরে দিলেই রেডি পুর-ভরা মরিচ ইলিশ! না, না আরও একটু কাজ বাকি এখনও। চিড়ে রাখা লঙ্কায় পুর ভরে প্যানে তেল ব্রাশ করে ঢাকা দিয়ে এপাশ-ওপাশ করে লঙ্কাটাও রেডি করে নিন। এতে লঙ্কার ঝাঁঝ পুরে ঢুকবে। স্বাদ বাড়বে দ্বিগুণ!
  • ইচ্ছে হলে স্রেফ ঘী-ভাত দিয়ে এই পদ দৌড়াতে পারে। আপনি চাইলে পছন্দের গ্রেভি (Hilsa Fish Curry) বানিয়ে তার সাথেও পরিবেশন করতে পারেন।

 

রেসিপি সৌজন্য: শিপ্রা গঙ্গোপাধ্যায়, বেহালা (কলকাতা)

 

 

#3. ইলিশের দইপোস্ত

ভাপা ইলিশ, সরষে ইলিশ, দই ইলিশ তো অনেক হয়েছে। দই-পোস্ত ইলিশ (Doi Ilish or Hilsa Fish cooked with Curd) কি খেয়েছেন কখনও? দারুণ লোভনীয় পদটি ধোঁয়া ওঠা ভাতের সাথে জাস্ট জবর যাবে! বানানোর ঝঞ্ঝাট নেই, সময়ও লাগে কম!

 

কী কী লাগবে:
ইলিশ মাছের টুকরো (৪); জল ঝরানো টকদই এককাপ; পোস্তবাটা; পাতিলেবুর রস; ক্রিম ২ চামচ; নুন-চিনি পরিমাণমতো; কাঁচালঙ্কা চেরা ৬টা, সরষের তেল।

 

কীভাবে বানাবেন: 

  • ইলিশ মাছ ভালোভাবে ধুয়ে ওতে একটা গোটা পাতিলেবুর রস, হলুদ আর নুন দিয়ে দুঘন্টা ম্যারিনেট করে রাখুন।
  • এবার পোস্ত, কাজুবাদাম একসঙ্গে বেটে নিন। ওর সঙ্গে ক্রিম আর এক চামচ দুধ মিশিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন। টকদইও ভালো করে নুন-চিনি দিয়ে ফেটিয়ে রাখুন।
  • ইলিশ মাছ একটু ভালো করেই ভেজে নিন। এবার কড়াইতে কালোজিরে ও কাঁচালঙ্কা ফোড়ন দিয়ে পোস্তর পেস্টটা ঢেলে দিন। একটু কষা হয়ে এলে দইয়ের মিশ্রণ দিন।
  • খুব ভালোভাবে মিশে তেল ছেড়ে আসলে অল্প জল দিন। মাছ দিয়ে ফুটতে দিন। বেশ মাখা মাখা হয়ে এলে উপর থেকে কাঁচালঙ্কা চেরা দিয়ে নামিয়ে দিন (Popular Bengali Fish Recipe)।
  • নামানোর আগে একবার নুন- মিষ্টি ঠিক আছে কিনা তা দেখে নেবেন। গরম ভাতের সঙ্গে জমবে ভালো।

 

রেসিপি সৌজন্য: রেশমী প্রামাণিক; যাদবপুর (কলকাতা)

 

 

#4. মোচা ইলিশের পাতুরি

কলাপাতার মোড়ক খুলতেই চমক। মোচার পরতে মোড়া সুস্বাদু ইলিশ। মোচা-চিংড়িকে গুনে গুনে গোল দিতে পারে একেবারে অভিনব স্বাদের মোচা-ইলিশের পাতুরি। (Ilish Maach Recipe Bengali Style) টিপটিপে বৃষ্টির সাথে স্রেফ জমিয়ে দেবে রবিবাসরীয় আড্ডা!

 

কী কী লাগবে:

মোচা: সেদ্ধ করে মেখে রাখা– ২ কাপ; আলু ভাপিয়ে টুকরো করা– আধা কাপ; সরষের তেল– ৫০ গ্রাম; আদা ও জিরে বাটা– আধা চামচ করে; কাঁচালঙ্কা কুচি– ২ চামচ; কাঁচালঙ্কা চেরা– ২টি
কলাপাতা; ইলিশের স্টক– এক কাপ; লবণ, চিনি– স্বাদ অনুযায়ী;
হলুদ– সামান্য।

 

কীভাবে বানাবেন:

  • মাছে লবণ, তেল ও হলুদ মাখিয়ে অল্প ভেজে তুলে রাখুন।
  • বাকি তেলে জিরে ফোড়ন দিয়ে আদা ও জিরে বাটা দিয়ে কষে নিয়ে আলুর টুকরো ও মোচা দিয়ে নেড়েচেড়ে স্টক এবং নু্ন, মিষ্টি, কাঁচালঙ্কা কুচি দিয়ে নামিয়ে রাখুন।
  • কলাপাতা সেঁকে তেল মাখিয়ে মোচার বেড বানিয়ে তার ওপর মাছ রেখে মুড়ে নিন। ভাপে সেদ্ধ করে কলাপাতা খুলে চেরা কাঁচালঙ্কা সাজিয়ে পরিবেশন করুন (Special Ilish Recipes)।

 

রেসিপি সৌজন্য: গৌরী ভট্টাচার্য, টালিগঞ্জ (কলকাতা)

 

 

#5. বৃষ্টির রাতে ইলিশের টক

দেখে-শুনে, চেখে-শুঁকে যে উপসংহারে আপাতত পৌঁছনো গিয়েছে, তাতে বলাই যায় বৃষ্টির রাতে ভাতের পাতে অনায়াসে খাপ খাইয়ে নিতে পারে মোহময়ী এই পদ। বানাতে সহজ, তেমনই গন্ধে একঘর! কবে বানাচ্ছেন আপনি? (Best Ilish Maach Recipes (Hilsa Recipes))

 

কী কী লাগবে:
ইলিশ মাছ- ৪পিস; ফোড়নের জন্য শুকনো লঙ্কা, গোটা সরষে আর পাঁচফোড়ন; হলুদগুঁড়ো- সামান্য; লবণ-চিনি স্বাদমতো; তেঁতুলের মাড়- ২ টেবিল-চামচ; চেরা কাঁচা লঙ্কা- ৩-৪টি; চাইলে অল্প সরষে বাটার জল।

 

কীভাবে বানাবেন:

  • কড়াইতে সরষের তেল দিয়ে ইলিশ মাছের পিসগুলো দিয়ে হালকা ভেজে তুলে নিন। বাকি তেলে শুকনো লঙ্কা, গোটা জিরে, গোটা সরষে, পাঁচফোড়ন দিন।
  • এবার এতে হলুদ দিয়ে নাড়াচাড়া করুন। তেল ছাড়লে আন্দাজমতো জল দিন। ফুটতে দিন মিশ্রণটা।
  • জল ফুটে উঠলে স্বাদমতো লবণ-চিনি মেলান। তেঁতুলের মাড়ও দিয়ে দিন।
  • এই ঝোলেই এবার ভাজা ইলিশের পিসগুলো ঢেলে দিতে হবে। রান্না হয়ে গেলে নামিয়ে নিন। গরম গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন (Bengali Style Hilsa Fish Recipes)।
  • স্বাদ বাড়াতে এই ঝোলে অল্প সরষে বাটার জল মেলান এই রেসিপির স্রষ্টা! চাইলে মেলাতে পারেন আপনিও।

 

রেসিপি সৌজন্য: রাগেশ্রী মুখোপাধ্যায়, ঝাড়গ্রাম

 

 

#6. ঢাকাই ভুনা ইলিশ

যতই যা-ই বলুন, স্বাদে-গন্ধে পদ্মার ইলিশ কিন্তু অনেক এগিয়ে…আর সেই ইলিশেই যদি ছোঁয়া লাগে ঢাকাই রেসিপির? ভাবলেই জিভে জল আসে তাই না? (Bangladeshi Ilish Recipe) আপনার ইলিশ-প্রেমের কাহিনি আমরা ভালোই জানি। তাই শেয়ার করলাম স্পেশাল এই পদ!

 

কী কী লাগবে:
ইলিশ মাছ- ১টা (মাঝারি সাইজের); পেঁয়াজ- ১০,১২টা(ছোট); রসুন বাটা- ১ চা চামচ; আদা বাটা- ১ চা চামচ, কাঁচালঙ্কা- ৪টে; হলুদ গুঁড়ো-১ চা চামচ; লেবুর রস-১ চা চামচ; সরষের তেল- পরিমাণ মতো

 

কীভাবে বানাবেন:

  • ইলিশ মাছ ভালো করে ধুয়ে ছোট টুকরোয় কেটে নিন।
  • কড়াইতে তেল গরম করে পেঁয়াজকুচি দিয়ে ভাজতে থাকুন। বাদামি করে ভেজে নিয়ে আদাবাটা, রসুন বাটা দিয়ে নুন দিয়ে নাড়তে থাকুন যতক্ষণ না পেঁয়াজ, আদা, রসুন সব ভালো করে মিশে যায়।
  • এরপর হলুদ গুঁড়ো দিয়ে সামান্য নেড়ে নিয়ে অল্প জল দিয়ে কষাতে থাকুন। কিছুক্ষণ কষিয়ে পরিমাণ জল ও মাছ দিয়ে চাপা দিয়ে রাখুন।
  • জল টেনে গিয়ে মাছ সেদ্ধ হয়ে গেলে আঁচ একেবারে কমিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন। (Ilish Macher Tel Jhol) লেবুর রস দিয়ে নামিয়ে নিন।

 

রেসিপি সৌজন্য: রাকা ভট্টাচার্য, কুঁদঘাট (কলকাতা)

 

 

#7. ইলিশের বিরিয়ানি

ইলিশ-পদের বিবর্তনের সাথে সাথে ইলিশ-বিরিয়ানিও ঢুকে গেছে বাঙালির পাতে। ইলিশ-বিরিয়ানি খেতে হলে এদ্দিন ভরসা ছিল কেবল নামীদামি রেস্তোরাঁই। (Ilish Biryani (Hilsa Biryani)) আমাদেরই এক বন্ধুর সৌজন্যে এবার পৌঁছে যাবে ছুটির পাতে!

 

কী কী লাগবে:
৩০০ গ্রাম বাসমতি রাইস; ৬ পিস ইলিশ মাছ; জায়ফল ও জয়িত্রী গুঁড়ো হাফ চামচ করে; ৫০ গ্রাম ঘী; আলু (বিরিয়ানির মতো করে কাটা) (Ilish Biryani Recipe); পেঁয়াজ; এক গ্লাস দুধে পনেরো মিনিট আগে ভিজিয়ে রাখা এক চামচ কেসর; গরম মশলা (দারচিনি ছোট ৩ টুকরো, এলাচ ১২টি, লবঙ্গ ১২টি)।

 

কীভাবে বানাবেন:

  • প্রথমে একটু বেশি তেলে মাছ ভেজে তুলে রাখতে হবে। তেলটিও তুলে রাখতে হবে আলাদা করে।
  • বাসমতি চালের ভাত প্রায় সেদ্ধ করে জল ঝরিয়ে রাখতে হবে।
  • আলু ও পেঁয়াজ ভেজে নিতে হবে আলাদা করে।
  • এবার একটি ডেকচি বা হাঁড়িতে ৫০ গ্রাম ঘীয়ের বেশির ভাগটাই নিয়ে ভালো করে ভিতরে মাখিয়ে দিতে হবে। তারপর সেদ্ধ ভাতের একটি লেয়ার তৈরি করে তার উপরে ভাজা দু’পিস মাছ ভাজা, আলু ও
  • পেঁয়াজের তিনভাগের একভাগ দিতে হবে।
  • এরকম মোট তিনটি লেয়ার হবে এবং প্রত্যেক লেয়ারেই গরম মশলার তিনভাগের একভাগ, জায়ফল-জয়িত্রী গুঁড়োর তিনভাগের একভাগ ছড়িয়ে দিতে হবে।
  • মাছভাজার তেল ও বাকি ঘী মিশিয়ে নিয়ে সেটিও ছড়িয়ে দিতে হবে তিনটি লেয়ারে। ভাত সেদ্ধ করার সময় লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নেওয়াই ভালো। তবে তার পরেও হাঁড়িতে লেয়ার তৈরি করার সময়ে অল্প একটু
  • লবণ ছড়িয়ে দিতে হবে প্রয়োজন হলে।
  • এবার সবচেয়ে উপরের লেয়ারটি উপরে সমান দূরত্বে তিনটি গর্ত করতে হবে আঙুল দিয়ে। ওই গর্তের মধ্যে দিয়ে ঢেলে দিতে হবে কেসর-ভেজানো দুধ।
  • এরপরে হাঁড়ির মুখটি আটা দিয়ে ভালো করে বন্ধ করে মৃদু আঁচে রান্না করতে হবে ৫ থেকে ৭ মিনিট মতো। রান্না হয়ে গেলে পরিবেশন করার আগে প্রথমে মাছগুলি তুলে নিয়ে একবার ভালো করে পুরো ভাতটা হাতা দিয়ে নেড়ে নিতে হবে। ইচ্ছে করলে এই রান্নাকে ইলিশ-পোলাও (Ilish Polao) বলা যেতেই পারে! (Ilish Pulao recipe)

 

রেসিপি সৌজন্য: চৈতালী মুখোপাধ্যায়, বেঙ্গালুরু

 

 

#8. কাঁচা আম-ইলিশের রোল

আনকোরা এই রেসিপির সন্ধান পেয়ে সত্যিই আপ্লুত আমরা। বেবি ডেস্টিনেশন-এর দপ্তরেও এর পরীক্ষামূলক পরিবেশনা হয়েছে। এবং উতরে গিয়েছে তোফা তোফা বলে। (Bengali Recipe for Durga Puja) আপনারও বানিয়ে ফেলুন, আর হয়ে উঠুন সেরা রাঁধুনি!

 

কী কী লাগবে:
৪ টুকরো ইলিশ মাছ, সেদ্ধ করে কাঁটা ছাড়ানো; পেঁয়াজ কুচি (১/২ কাপ); কাঁচা আম কুচি (১/২ কাপ); সরষের তেল (১/৪ কাপ), চেরা কাঁচালঙ্কা (৮-১০ টা), (Best Ilish Maach Recipes ) আস্ত কাঁচালঙ্কা (৩-৪ টি), হলুদ (সামান্য), নুন (স্বাদমতো), চিনি (অল্প, চাইলে দেবেন); রোল বানাতে ময়দা, জল, সাদাতেল, সুজি।

 

কীভাবে বানাবেন:

  • কাঁটা ছাড়ানো, সেদ্ধ ইলিশ মাছ অল্প নুন আর হলুদ মাখিয়ে হাতে চটকে রেখে দিন।
  • এবার অন্য একটি বাটিতে পেঁয়াজ কুচি, চেরা কাঁচালঙ্কা, স্বাদমতো নুন, চিনি আর অল্প হলুদ নিয়ে হাত বা চামচ দিয়ে ভালোমতো মাখিয়ে চটকানো ইলিশ দিয়ে একটু মেখে ১০-১৫ ম্যারিনেট করে রাখতে হবে।
  • এরপর প্যানে তেল গরম করে মাখা ইলিশ মাছ ঢেলে দিয়ে অল্প আঁচে সামান্য জল দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করে আমের কুচি দিয়ে দিতে হবে।
  • রোলে ভরার পুর মোটামুটি রেডি। এবার ময়দা মেখে গোল গোল পরোটা গড়ার পালা। ময়দা যত ভালো মাখা হবে, ততই নরম, মুচমুচে হবে রোল (Ilish Roll)।
  • তাওয়ায় পরোটা ইলিশের পুর ভরে রোল করে নিন। পিস পিস করে পেঁয়াজ কুচি, শসা কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন কাঁচা আম-ইলিশের রোল!

 

রেসিপি সৌজন্য: তৎমিনা দত্ত রায়, যাদবপুর (কলকাতা)

 

 

#9. ইলিশ কোফ্তা কারি

কাঁচকলা, এঁচড়, মোচা, ছানা কতকিছুরই তো কোফতা খেয়েছেন। কিন্তু ইলিশের (Hilsa Ilisha) কোফতা খেয়েছেন কখনও? আকার ও রেসিপির দিক থেকে সম্পূর্ণ অভিনব এই রেসিপি ঠিক কারণেই জায়গা করে নিয়েছে সেরা দশে।

 

কী কী লাগবে:

ধাপ- ১
ইলিশ মাছের সেদ্ধ কিমা ২ কাপ; ডিম ফেটানো ১টি; পেঁয়াজ বেরেস্তা আধ কাপ; কাঁচালঙ্কা কুচি ১ টেবিল-চামচ; লবণ পরিমাণমতো; লেবুর রস ১ টেবিল-চামচ; ধনেপাতাকুচি ২ টেবিল-চামচ; টমেটো সস ১ টেবিল-চামচ; পাউরুটির গুঁড়ো আধ কাপ; পাউরুটির (সাদা অংশ) ১ পিস; ভাজার জন্য তেল পরিমাণমতো (Hilsa Curry Recipe: How to Make Hilsa Curry)।

 

ধাপ- ২
পেঁয়াজবাটা পৌনে এক কাপ; টকদই ২ টেবিল-চামচ; লঙ্কাগুঁড়ো ১ চা-চামচ; জিরেগুঁড়ো আধা চা-চামচ; আদাবাটা আধা চা-চামচ; টমেটো সস ১ টেবিল-চামচ; লবণ পরিমাণমতো; চিনি ১ চিমটে; তেল কোয়ার্টার কাপ।

 

কীভাবে বানাবেন:

ধাপ -১

  • একটি পাত্রে সব উপকরণ ভালোভাবে মাখিয়ে নিন।
  • মাখানো উপকরণ ৮-১০ ভাগ করে গোল গোল কোফ্তা বানিয়ে নিন। কড়াইতে তেল গরম করে কোফ্তা বাদামি করে ভেজে নিন।

ধাপ -২

  • কড়াইতে তেল গরম করে সব মসলা কষিয়ে নেয়ার পর দই, সস ও সামান্য দিয়ে নেড়ে দিন।
  • এবারে কোফ্তাগুলো দিয়ে হালকা আঁচে ঢেকে দিন।
  • ঝোল মাখা মাখা হলে চিনি দিয়ে নেড়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

 

রেসিপি সৌজন্য: সায়ন্তী মুখোপাধ্যায়, নাগেরবাজার (দমদম)

 

 

#10. আস্ত বেকড ইলিশ

শেষ কথা কে বলবে? বলবে না, শেষপাতে মানে, রেসিপির লিস্টিতে শেষ নম্বরে কামাল দেখাবে তুলতুলে, সুস্বাদু, লোভনীয় বেকড ইলিশ (Whole Hilsa Baked Recipe)। বাড়িতে ওভেন আর মনমতো একটা ইলিশ থাকলেই হলো (Bhapa Ilish- Steamed Hilsa)। রেসিপি দিয়ে গাইড করছি আমরা!

 

কী কী লাগবে:

ইলিশ মাছ ১টা, মাঝারি সাইজের; লাল লঙ্কাগুঁড়ো ১ টেবিল-চামচ; পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল-চামচ; টকদই ২ টেবিল-চামচ; লেবুর রস ১ টেবিল-চামচ; ভিনেগার ১ টেবিল-চামচ; সরিষার তেল ৩-৪ টেবিল-চামচ; লবণ পরিমাণমতো; কাঁচালঙ্কা (কুচনো) ৩-৪টি; আদার রস ১ টেবিল-চামচ; তন্দুরি মসলা ১ চা-চামচ; অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল।

 

কীভাবে বানাবেন:

  • আস্ত মাছকে ছুরি দিয়ে চিরে দিন, যাতে মশলা ভেতরে যেতে পারে। এবার লবণ মাখিয়ে এক ঘণ্টা রেখে দিন।
  • বাটিতে সব মশলা মাখিয়ে নিন। মাখানো মশলা মাছের দুই পাশে ভালোভাবে লাগিয়ে ফয়েলের উপর রেখে ফয়েলটি মুড়িয়ে নিন।
  • ওভেন প্রি হিট করে ১৮০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ৩০-৪০ মিনিট বেক করে নামিয়ে নিন। (Ilish Bhapa in Oven) লেবু চাক চাক করে কেটে, মাছের চিড়ে নেওয়া জায়গাগুলোতে ঢুকিয়ে পরিবেশন করুন। (Best Ilish Maach Recipes (Hilsa Recipes))

 

রেসিপি সৌজন্য: সোনিয়া পরভিন, বেঙ্গালুরু

 

আর তালে দেরি কেন? ঝোল-ঝাল, গ্রিল-রোস্ট, রোল-বিরিয়ানি— আপনারই আহারের অধীর অপেক্ষায় বাহারে ইলিশ। ইলশেগুঁড়ি মাথায় করে, ছাতা মাথায় বাজার থেকে একখান ইলিশ এবার আনলেই হলো!

 

একজন মা হয়ে অন্য মায়েদের সঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতা ভাগ করে নিতে চান? মায়েদের কমিউনিটির একজন অংশীদার  হয়ে যান। এখানে ক্লিক করুন, আমরা আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করব।

null

null